বুধবার, ১৬ জুন ২০২১, ০১:০৯ অপরাহ্ন

রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল বন্ধ ও শ্রমিক ছাঁটাইয়ের প্রতিবাদ বিএনপি জামায়াত ও নেজামে ইসলামের

মোহাম্মদ অলিদ সিদ্দিকী তালুকদার
  • প্রকাশ : মঙ্গলবার, ৩০ জুন, ২০২০
  • ২৬২

রাষ্ট্রায়ত্ত ২৬টি পাটকল বন্ধ করে হাজার হাজার শ্রমিক-কর্মচারীকে ছাঁটাইয়ের সরকারি ষড়যন্ত্রের অভিযোগ তুলে এর তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন বিএনপি, জামায়াতে ইসলামী ও নেজামে ইসলাম পার্টির নেতারা। গতকাল পৃথক বিবৃতিতে তারা এ প্রতিবাদ জানান।
বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এক বিবৃতিতে বিদ্যমান করোনা সঙ্কটকালে দরিদ্র শ্রমজীবী মানুষের পাশে দাঁড়ানোর পরিবর্তে বাংলাদেশ পাটকল সংস্থার ২৫টি মিলে লে-অফ ঘোষণা করে শ্রমিক এবং তাদের পরিবারের লাখ লাখ নারী-পুরুষ ও শিশুকে নিশ্চিত মৃত্যুর মুখে ঠেলে দেয়ার যে অমানবিক, অসময়োচিত ও অন্যায় উদ্যোগ নিয়েছে তার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন।
বিবৃতিতে তিনি বলেন, যখন কোনো শ্রমিক কর্মচারীকে ছাঁটাই না করার শর্তে আমরা দেশের সব শিল্প রক্ষার জন্য সরকারি সহায়তা ও সহজ শর্তে ঋণ প্রদানের দাবি জানাচ্ছি এবং সিপিডিসহ বিভিন্ন গবেষণা প্রতিষ্ঠান যখন আইন করে এই দুঃসময়ে লে-অফ, শ্রমিক ছাঁটাই কিম্বা কারখানা বন্ধ না করার দাবি জানাচ্ছে তখন সরকারের এমন গণবিরোধী সিদ্ধান্ত নাগরিকদের প্রতি দায়িত্বহীনতার পরিচায়ক। আমরা এমন কোনো অন্যায় ও অসময়োচিত সিদ্ধান্ত না নেয়ার জন্য সরকারের প্রতি জোর দাবি জানাচ্ছি। তিনি আরো বলেন, শ্রমজীবী মানুষ ও শিল্পবিরোধী এমন সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে শ্রমিক-কর্মচারীদের শান্তিপূর্ণ গণতান্ত্রিক কর্মসূচির প্রতি আমরা সমর্থন জানাচ্ছি।
জামায়াতে ইসলামী : বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর সেক্রেটারি জেনারেল ও সাবেক এমপি অধ্যাপক মিয়া গোলাম পরওয়ার গতকাল এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, ক্রমাগত লোকসানের অজুহাত দেখিয়ে করোনা ভাইরাসের এই কঠিন দুর্যোগ মুহূর্তে শ্রমিক নিধনের সুগভীর ষড়যন্ত্র এবং স্থায়ী, বদলি শ্রমিকসহ প্রায় ৬৫ হাজার শ্রমিকের পরিবারকে পথে নামানোর এ অমানবিক পদক্ষেপে আমি গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করছি। সেই সাথে মানবিক কারণে শ্রমিক-শিল্পবিরোধী এ সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের জন্য সরকারের কাছে আমি জোর দাবি জানাচ্ছি।
তিনি দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, সোনালী আঁশ খ্যাত পাট ও পাটজাত দ্রব্যের বিশ্বব্যাপী ব্যাপক চাহিদা থাকা সত্ত্বেও সরকারের সীমাহীন দুর্নীতি, ব্যর্থতা, অপরিণামদর্শী ও ভুল সিদ্ধান্তের কারণে আজ এ করুণ পরিণতির সৃষ্টি হয়েছে। এ সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসে অবিলম্বে সরকারের উচিত মিলগুলো পুরোদমে চালু করে শ্রমিকদের সব পাওনাদি অবিলম্বে পরিশোধ করা।
তিনি বলেন, সারা বিশ্ব যখন কঠিন দুর্যোগে নিপতিত সে মুহূর্তে ‘মড়ার উপর খাঁড়ার ঘা’ হিসেবে মিল বন্ধের সিদ্ধান্ত খুবই অমানবিক ও মর্মান্তিক জুলুম। সারা দেশে যখন দুর্ভিক্ষ হাহাকার চলছে তখন শ্রমিক ছাঁটাই অনৈতিক। অবিলম্বে মিলগুলোতে নতুন আধুনিক মেশিন স্থাপন, ওভারহোলিং ও পাট ক্রয়ে পর্যাপ্ত অর্থ বরাদ্দ করে উৎপাদন অব্যাহত রাখার জন্য আমি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে জোর দাবি জানাচ্ছি।
নেজামে ইসলাম পার্টি : রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকলগুলো বন্ধ করার সরকারি সিদ্ধান্তকে অমানবিক ও রাষ্ট্রীয় দৈন্যতার স্পষ্ট নজির বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ নেজামে ইসলাম পার্টির আমির আল্লামা সারওয়ার কামাল আজিজী ও মহাসচিব মাওলানা মুসা বিন ইযহার।
গতকাল এক বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় বলেন, ২৫টি পাটকল বন্ধ করলে ২৫ হাজার শ্রমিক চাকরি হারাবেন যা জনজীবনে গভীর সঙ্কট তৈরি করবে। অব্যাহত লোকসানের কারণ দেখিয়ে এমন ঐতিহ্যবাহী একটা সেক্টরকে বিলুপ্ত করা সরকারি দৈন্যতার লজ্জাজনক নজির। লোকসানের মূল কারণ দুর্নীতি, স্বেচ্ছাচারিতা ও রাষ্ট্রীয় পরিকল্পনার অসারতা। সেসব বিষয়ে সরকার সদিচ্ছা না দেখিয়ে পুঁজিবাদী ক্রীড়নকদের স্বার্থ রক্ষায় এমন জাতীয় স্বার্থ পরিপন্থী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে যা আমরা মেনে নিতে পারি না।
তারা আরো বলেন, করোনাকালীন এই সঙ্কটে যেখানে সরকারের গরিব, দুঃখী ও মেহনতি মানুষের পাশে দাঁড়ানোর কথা সেখানে শ্রমিক ছাঁটাইয়ের মাধ্যমে চূড়ান্ত লজ্জাজনক ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে সরকার। এর মাধ্যমে প্রমাণিত হয়েছে এ সরকারের কাছে জনগণের চাহিদা এবং সুযোগ-সুবিধার কোনো মূল্য নেই। অবিলম্বে এ সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করতে হবে।

Share This Post

আরও পড়ুন